Main Menu

ব্রীজ দেখে বাড়ি ফেরা হলোনা শিশু সুরাইয়ার

IMG20210914172931

মহম্মদপুর প্রতিনিধি, মাগুরাবার্তা
শিশু সুরাইয়ার (৪)অনেক দিনের আবদার ছিল মধুমতি নদীর উপর ‘শেখ হাসিনা সেতু ‘ দেখতে যাবে । আজ তিন মেয়েকে সাথে নিয়ে সেতু দেখতে আসেন মা ।
সেতুর পাশে দাড়িয়ে ছিলেন আকস্মিক দ্রুতগামি মোটর সাইকেল চাপা দেয় সুরাইয়াকে। ঘটনাস্থলেই মারা যায় সে। এ সময় দুই মোটরসাইকেল আরোহীও গুরুতর আহত হন।

আজ মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বিকেল পৌনে পাঁচটার দিকে মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলা সদরে মধুমতি নদীর সেতুর উপর এ দুর্ঘটনা ঘটে। শিশুটির বাবা গোলজার শেখের বাড়ি পাশ্ববর্তী ফরিদপুরের বোয়ালমারির ময়না ইউনিয়নের হাটখোলা গ্রামে। তিনি পোশায় ভ্যানচালক। শিশু সুরাইকে মহম্মদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনলে আবাসিক চিকিৎসক কাজী আবু আহসান মৃত ঘোষণা করেন।

দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত মোটর সাইকেল আরোহী ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা উপজেলার বাজরা গ্রামের মঞ্জুরুল শেখের ছেলে সাজিদ শেখ (১৪) ও একই গ্রামের ইকবাল শেখের ছেলে সোহান শেখ (২০)। তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

নিহত শিশু সুরাইয়ার বাবা ভ্যান চালক গোলজার শেখ আহাজারি করছেন। তিনি বিলাপ করতে করতে বলেন,’ মেয়েডা মেলাদিন ব্রিজ দেহার বায়না ধরত। ওর মারে কলাম আমি কামে যাচ্ছি তুমি নিয়ে যাও। মায়েডা গিলো কিন্তু লাশ হয়ে ফিরলো।

মহম্মদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পা কর্মকর্তা মকেছেদুল মোমিন বলেন, মোটরসাইকেল আরোহীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

মহম্মদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) রামানন্দ পাল বলেন, খবর পেয়ে হাসপাতালে যাই। শিশু সুরাইয়াকে বাচানো যায়নি।

মহম্মদপুর/ মাগুরা/ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১






Comments are Closed