Main Menu

তথ্য কমিশন নিজেই আপডেট না ! ৫বছরের পুরাতম তথ্যে ওয়েবসাইট

মাগুরায় তথ্য কমিশনারের অনলাইন ট্রাকিং বিষয়ক সভা

Tottho Pic

বিশেষ প্রতিনিধি, মাগুরাবার্তা
মাগুরায় বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা ও সাধারণ মানুষকে তথ্য অধিকার আইন ও ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অনলাইন ট্রাকিং বিষয়ক দিনব্যাপী জন অবহিতকরণ সভা করেছেন প্রধান তথ্য কমিশনার। তবে ওই ওয়েবসাইটে গিয়ে দেখা গেছে ওয়েবসাইটে জেলার বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানের ফোকাল পার্সন বা তথ্য প্রদানকারি কর্মকর্তা হিসেবে যাদের নাম দেয়া রয়েছে তারা অধিকাংশই ৪/৫ বছর আগে মাগুরা থেকে বদলী হয়ে চলে গেছেন। এতে অনেকেই দিনভর ওই সভার কার্যকারিতা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন।  http://rtitracking.infocom.gov.bd শিরোনামে এই সরকারি ওয়েবসাইটভিত্তিক  ট্রাকিং সফটওয়ারে রেজিস্ট্রেশন করলে দেখা যায়, পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে তথ্য কর্মকর্তা সুদর্শণ কুমার রায়’র নাম। যিনি ৫ বছর আগে মাগুরা থেকে বদলী হয়ে গেছেন। হিসাব রক্ষণ অফিসে জিল্লর রহমান ৪বছর আগে বদলী হয়েছেন।ক্রীড়া অফিসে নাজমুল হাসান লোভন ৩বছর আগে রিটায়ার্ড করে বর্তমানে আমেরিকা প্রবাসি,  জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের তথ্য কর্মকর্তা হিসেবে লেখা আছে টেস্ট। এভাবে অধিকাংশ তথ্য কর্মকর্তার নামই ৪/৫ বছরের পুরাতন। এ ধরণের অসম্পূর্ণ ওয়েবসাইট নিয়ে সরকারের বিপুল টাকা খরচ করে জেলায় জেলায় সভা ও উপজেলা পর্যায়ে কর্মশালার কার্যকারিতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন সভায় আসা অনেক  অংশগ্রহণকারি। তারা জানান- জনগনের তথ্য অধিকার নিশ্চিত করতে সরকারের কোটি কোটি টাকা খরচ করে ওয়েবসাইট তৈরী করলেও সে ওয়েবসাইট কতটা জনগণের কাজে আসবে সেটাই এখন ভাবার বিষয়।
সকালে শহরের আছাদুজ্জামান মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সভায় জেলা প্রশাসক আশরাফুল আলম এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রধান তথ্য কর্মকর্তা মরতুজা আহমেদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন তথ্য কমিশনের পরিচালক (প্রশাসক) জে.আর.শাহরিয়ার, মাগুরার পুলিশ সুপার খান মুহাম্মদ রেজওয়ান, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পংকজ কুন্ডু, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আবু নাসির বাবলুসহ অন্যরা। প্রধান তথ্য কমিশনার জানান- ২০০৯ সালে এ আইনটি প্রবর্তনের পর থেকে বাংলাদেশে তথ্য দেয়ার ক্ষেত্রে সরকারি অফিসগুলির উপর আইনগত বাধ্য বাধকতা তৈরী করা হয়েছে। এরফলে আইনগতভাবে জনগণের  স্বার্থ রক্ষায় আর এক ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ। তিনি বলেন- সকল স্কুল কলেজে তথ্য অধিকার আইন পড়াতে হবে। জনগণের অধিকার আদায়ে সকলকে প্রস্তুত হতে হবে। সরকারের প্রতিটি দফতরের তথ্য কর্মকর্তাদের নিয়মিত প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে। তথ্য সন্ত্রাস রোধে জনগণকে প্রস্তুত করা হচ্ছে। সভায় বিভিন্ন সরকারি বেসকারি দফতর, রাজনৈতিক, সামাজিক ও নারী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার জনগণ অংশগ্রহণ করেন।

রূপক/মাগুরা /২২ জানুয়ারী ২০২০






Comments are Closed