Main Menu

মাগুরায় সংবাদ সম্মেলনে পরিবারের দাবী

শ্রীপুরে সুদে লাগানো টাকা আদায় করতে গিয়েই খুন হন জালাল মোল্যা

a

বিশেষ প্রতিনিধি, মাগুরাবার্তা
সুদে টাকা খাটিয়েই সেই টাকা আদায় করতে গিয়েই পাওনাদারদের হাতে হত্যার শিকার হয়েছেন মাগুরার শ্রীপুরে জালাল মোল্যা। আর হত্যাকান্ডের পর  মামলা মোকদ্দমা না করার জন্য জালালের স্ত্রী সন্তানদের হুমকি দিচ্ছে আসামীরা। এ ঘটনায় চিহ্নিত ওই আসামীদের গ্রেফতার ও বাদি পক্ষের নিরাপত্তার দাবিতে সোমবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করে নিহতের পরিবারের সদস্যরা এ দাবী করেছেন।
মাগুরা প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান নিহত জালাল মোল্যার মেয়ে আকলিমা আক্তার মলিনা। লিখিত বক্তব্যে তারা অভিযোগ করেন- পার্শ্ববর্তী শৈলকুপা উপজেলার বন্দেখালি গ্রামের নুজাই মোল্যার ছেলে তাহাজ্জত মোল্যা, শ্রীপুর উপজেলার ছাবিনগর গ্রামের হবিবার মোল্যার ছেলে পিকুল মোল্য ও তোফাজ্জেল মন্ডলের ছেলে বাদশা মোল্যার কাছে ৩লাখ টাকা সুদে টাকা ধার দেন । এ পাওনা টাকা নিয়ে বিরোধের জের ধরে আসামীরা গত ১জানুয়ারী রাতে জালাল মোল্যাকে ডেকে নিয়ে হত্যা করে। পরদিন তার লাশ স্থানীয় একটি মাঠের মধ্যে পাওয়া যায়। এব্যাপারে ওই তিনজনকে আসামী করে প্রথমে শ্রীপুর থানায় মামলা করতে গেলে ওসি মামলা না নিয়ে তিনি বলেন জালাল মোল্যা নিজে আতœহত্যা করেছে। পরে মাগুরা শ্রীপুর নালিশি আমলী আদালতে হত্যা মামলা দাখিল করে। আদালত মৃত্যুর সঠিক কারন নির্ণয় করে আদালতকে জানাতে শ্রীপুর থানাকে নির্দেশ দিয়েছে। এদিকে এই মামলা তুলে নেয়ার জন্য বাদিনী ও তার পরিবারের লোকদেরকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি ধমকি দিচ্ছে আসামীরা। যে কারনে সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে প্রশাসনের কাছে মামলার সঠিক তদন্ত ও নিরাপত্তার দাবী জানিয়েছেন তারা। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন নিহতের স্ত্রী ও মামলার বাদি কমলা বেগম, জামাই রিপন মিয়া।
শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মাহবুবুর রহমান জানান, নিহতের পরিবারের লোকদের হুমকির বিষয়টি তাদের জানানেই। তবে পোষ্টমর্টেম রিপোর্টের উপর নির্ভর করছে মামলার ভবিষ্যত। রিপোর্ট পাওয়ার পর তা  আদালতে প্রতিবেদন আকারে দাখিল করা হবে।

রূপক /মাগুরা /০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২০






Comments are Closed