Main Menu

নারী সাহসিকা......

ঢাকায় ১কিমি দৌড়ে ছিনতাইকারী ধরলেন মাগুরার মেয়ে ম্যাজিস্ট্রেট সালমা

46414960_2258857747730121_549996130193113088_n

অনলাইন ডেস্ক, মাগুরাবার্তা
ম্যাজিস্ট্রেট সালমা খাতুন। বাড়ি মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলা মৌশা গ্রামে। কর্মরত আছেন ঢাকার দোহার উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিসেবে। শনিবার বিকেলে ঢাকার হাতিরঝিলে অন্তত এক কিলোমিটার দৌড়ে ছিনতাইকারী পাকড়াও করে সাহসিকতার স্বাক্ষর রেখেছেন এই নারী কর্মকর্তা। তাঁর এই সাহসিকতার এ গল্প ঘুরছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও।

সালমা খাতুনের সাথে কথা বলে জানা যায়, শনিবার বিকেলে রিকশায় করে রাজধানীর হাতিরঝিল দিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। ওখানে যানজটে বসে থাকার এক মুহূর্তে তাঁর গলায় থাকা লকেটসহ স্বর্ণের চেইনটি ছিঁড়ে নিয়ে দৌড় দেয় ছিনতাইকারী। তিনি সাহস করে তাকে ধাওয়া করেছিলেন। শাড়ি পরিহিত অবস্থা ছুটতে ছুটতে অন্তত এক কিলোমিটার দৌড়ে ছিনতাইকারীকে ধরে ফেলেন। উদ্ধার করেন তাঁর চেইনটি। তবে ছিনতাইয়ের সময় লকেটসহ চেইনটি টুকুরো হয়ে যাওয়ায় চেইনের পুরো অংশটি উদ্ধার করতে পারেননি তিনি। পরে ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে সাহায্য নেন পুলিশের। ছিনতাইকারীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দিয়ে তাকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন সালমা খাতুন।

সালমা খাতুন বলেন, নারী-পুরুষ ভেদে সাহসিকতার ভিন্ন কোনো সংজ্ঞা নেই। যেকোনো অপরাধ সংঘটনের প্রাথমিক পর্যায়ে যদি সাধারণ মানুষ পুলিশ আসার অপেক্ষায় না থেকে সাহস করে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারে, তাহলে সেটিই বহু সমস্যার আগাম সমাধান দিতে পারে। একজন নারীর সাহসিকতা দেখে দশজন নারী এগিয়ে আসবে। তারাও প্রেরণা পাবে সাহস নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার। আমার এ কর্মকাণ্ড দেখে সেখানে থাকা আরো ১৫/২০ জন নারী এগিয়ে এসে আমাকে ধন্যবাদ দিয়েছে। আমি মনে করি তারাও প্রেরণা পেয়েছে সাহসের সাথে অপরাধ মোকাবিলা করার।

ছবি: ফেসবুক থেকে সংগৃহীত

রূপক/মাগুরা/ ৩ মার্চ ১৯






Comments are Closed