Main Menu

চলে গেলেন প্রখ্যাত সাহিত্যিক ড. ফজলুল আলম

dr-fazlul-alam

শাহিনুর আহমেদ, মাগুরাবার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
বিশিষ্ট প্রাবন্ধিক, কথাসাহিত্যিক ও সংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ড. ফজলুল আলম আর নেই।  আজ বুধবার  (১৬ নভেম্বর) দুপুর ১.৩০ মিনিটে তিনি রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন। ইন্নালিল্লাহে…….রাজেউন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর। তিনি বার্ধক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন। ড. ফজলুল আলম ১৯৪১ সালে বগুড়ার এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বিশিষ্ট শিশু সাহিত্যিক ও চ্যানেল আই’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগরের ছোট চাচা।

সুদীর্ঘ পঁচিশ বছর তিনি ইংল্যান্ডে বসবাস করেন। ১৯৯৬ সালে দেশে ফিরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রন্থাগারে লাইব্রেরিয়ান পদে যোগ দেন। সেখানে তিনি লাইব্রেরি অটোমেশান প্রজেক্ট (DULAB) চালু করেন ও ইউএনডিপি অনুদানের প্রস্তাবিত সকল শর্ত সফলভাবে সময়মতো কার্যকর করেন।

প্রথম কয়েক বছর বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় কলাম লিখলেও ২০০২ সনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অবসর পেয়ে সৃজনশীল ও মননশীল সাহিত্যে মনোনিবেশ করেন। ২০০৪ সনে প্রকাশিত উপন্যাস, ‘ক্রান্তিকালে প্রতারক’, লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলা বিভাগে ডিগ্রি কোর্সে মনোনীত হয়। ইংল্যান্ডে তাঁর দুটি গবেষণা গ্রন্থ প্রকাশিত হয়। সেখানে থাকাকালে তিনি নিজ খরচে লাইব্রেরিয়ানশিপে চার্টার্ড, এথনিক রিলেশান্সে মাস্টার্স ও কালচারাল স্টাডিজে ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জন করেন। অনানুষ্ঠানিক জ্ঞানচর্চার সম্পৃক্ততা ও প্রভাব তাঁর সব লেখালিখিতে প্রতিফলিত হয়। তাঁর বিষয় ও যুক্তি পাঠকের মনে দৃঢ়ভাবে প্রতিষ্ঠিত হয়, নাড়া দেয় সনাতনী ও সামাজিকভাবে সৃষ্ট ধারণাগুলোকে, খুঁজে বের করতে চায় বাস্তবের আলোকে সমাজের মিথ্যাগুওেলাকে প্রতিহত করার পথ।
২০০৭ সনে সংস্কৃতির সত্যমিথ্যা প্রকাশ করেন তিনি। নিজেকে একজন সংস্কৃতি অধ্যয়ন বিশেষজ্ঞ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেন। তারপর তিনি প্রতি বছর সংস্কৃতি বিষয়ে একটা করে সুচিন্তিত ও তথ্যমূলক বই প্রকাশ করেন। ২০১০ সনে প্রকাশিত সংস্কৃতি সমগ্র সুধী মহলে  বহুল সমাদৃত। তিনি সম্পূর্ণ নতুন বিষয় সংস্কৃতিতত্ত্ব বিরোধিতা’র ওপরও লিখেছেন। তার পাঁচটি ছোটগল্প নাটক ও টেলিফিল্ম হিসেবে টেলিভিশনে প্রদর্শিত হয়েছে। তাঁর একটা উপন্যাস থেকে চলচ্চিত্র নির্মাণাধীন। তিনি স্যাটেলাইট চ্যানেলে সর্বপ্রথম বিষয়ভিত্তিক টক শো ‘কড়া আলাপ’র পরিকল্পক ও উপস্থাপক। তিনি সিটি আনন্দ আলো সাহিত্য পুরস্কার (২০০৮) ও বাংলা একাডেমি পরিচালিত সা’দত আলি আখন্দ সাহিত্য পুরস্কার (২০১৪) লাভ করেন।

 

১৬ নভেম্বর ১৬



(Next News) »



Comments are Closed