Main Menu

ছাত্রলীগ নেতাসহ একাধিক ব্যক্তি প্রতিষ্ঠানের ঋণের দায়ে

শ্রীপুরে ঋনের টাকা দিতে না পেরে গৃহবধূর আত্মহত্যা

index

বিশেষ প্রতিনিধি, মাগুরাবার্তা
মাগুরার  শ্রীপুর উপজেলার হরিন্দি গ্রামে ঋণের টাকা পরিশোধ করতে না পেরে রিনা বিশ্বাস নামে এক গৃহবধূ কীটনাশক পান করে আত্মহত্যা করেছে। সে ওই  গ্রামের মৎস্য ব্যবসায়ী সরজিৎ বিশ্বাসের  স্ত্রী।
পরিবারের সদস্যরা জানায়, রিনা বিশ্বাস স্বামীর ব্যবসায়িক কাজের জন্যে আশা এনজিও থেকে ৩০ হাজার, সরকারের পল্লি দারিদ্র বিমোচন ফাউন্ডেশেন-পিডিবিএফ থেকে ৪০ হাজার এবং শ্রীপুর উপজেলা ছাত্রলীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক তানভির মেহরাব হোসেন  অপি’’র কাছ থেকে ৩০ হাজার টাকা ঋণ নেয়। কিন্তু দুটি প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে নেয়া ঋণের কিস্তির পাশাপাশি সুদে কারবারির সাপ্তাহিক সুদের টাকা পরিশোধ করা তাদের পক্ষে কষ্টকর হয়ে দাঁড়ায়। যা নিয়ে রিনা বিশ্বাস মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিল।
রিনা বিশ্বাসের পুত্রবধূ কল্পনা রাণি জানান, সর্বশেষ গত বুধবার রাত ৯ টার দিকে শ্রীপুর উপজেলা ছাত্রলীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক তানভির মেহরাব হোসেন  অপি তার কাছ থেকে নেয়া টাকার বিপরীতে পাওনা  টাকার জন্যে বাড়িতে এসে জোর তাগিদ দিয়ে গেলে তিনি ভেঙ্গে পড়েন। পরে রাত সাড়ে ১০ টার দিকে তিনি ঘরে থাকা কীটনাশক পানে আত্মহত্যার চেষ্টা চালান। দ্রুত তাকে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে শনিবার বিকালে সেখানে দুপুরে তার মৃত্যু হয়।
এ বিষয়ে শ্রীপুর থানা অফিসার ইন চার্জ (ওসি) মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘ঋণের কারণে রিনা বিশ্বাসের মৃত্যুর খবর পুলিশের কাছে নেই। তবে তার আত্মহত্যার বিষয়টি শুনেছি’।

মাগুরা/২৪ আগস্ট






Comments are Closed