Main Menu

বেলনগরে হাইকোর্টের বিচারপতির গ্রামের বাড়িতে ডাকাতি

Magura Dakati News Pic

বিশেষ প্রতিনিধি, মাগুরাবার্তা
মাগুরা সদর উপজেলার বেলনগর গ্রামে হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি খায়রুল আলমের গ্রামের বাড়িতে বৃহস্পতিবার ভোররাতে ডাকাতি হয়েছে। ডাকাতরা বিচারপতির মা, ভাই ও পরিবারের অন্য সদস্যদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ১৫ ভরি সোনা, নগদ অর্থ, মাবাইল সেটসহ বিভিন্ন মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় সদর থানায় মামলা হয়েছে।
বিচারপতি খায়রুল আলমের মা সুফিয়া বেগম জানান, বৃহস্পতিবার রাত ৩ টার দিকে ৮-১০ জনের একটি ডাকাতদল তাদের বাড়ির পেছন দিয়ে ঘরের দরজা ভেঙ্গে ভেতরে ঢুকে পড়ে। এ সময় তারা দেশীয় ধারালো অস্ত্রের মুখে পরিবারের সদস্যদের জিম্মি করে নগদ ৩০ হাজার টাকা, ১৫ ভরি ওজনের স্বর্ণালঙ্কারসহ প্রায় ১৫ লাখ টাকার অন্যান্য মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।
মাগুরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুল ইসলাম জানান, বিচারপতির ছোট ভাই আশরাফুল আলম শিমুল বাদী হয়ে থানায় একটি ডাকাতির মামলা দায়ের করেছেন। সেখানে তিনি ১৫ ভরি স্বর্ণ ও নগদ অর্থ লুটের অভিযোগ এনেছেন।
মাগুরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম জানান,‘খবর পেয়ে মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ সাইফুজ্জামান,পুলিশ সুপার খান মুহাম্মদ রেজোয়ানসহ পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। লুটে নেয়া মালামাল উদ্ধারসহ জড়িতদের গ্রেফতার অভিযান শুরু হয়েছে।’
প্রসঙ্গত, গত ১ মে গভীর রাতে পুলিশ পরিচয়ে শ্রীপুর উপজেলার মাশালিয়া গ্রামে ৩ বাড়িতে ডাকাতি হয়। ডাকাতদল এ ৩ বাড়ি থেকে নগদ ১ লাখ ২৫ হাজার টাকা, ১৮ ভরি সোনা ও ১০ টি মোবাইল ফোন সেট লুট করে নিয়ে যায়। এছাড়া ডাকাতদলের হামলায় আহত হন গৃহকর্তা সনৎ কুমার বিশ্বাস (৬০) ও তার স্ত্রী সম্পা রানী বিশ্বাস (৫৫)। জেলায় এ ধরনের ডাকাতির সংখ্যা ক্রমশ বেড়ে যাওয়ায় আতংকিত হয়ে পড়েছেন মানুষ। এটি প্রতিরোধে পুলিশী জনবল বাড়িয়ে নৈশকালিন প্রহরা আরো জোরদার করা জরুরী বলে স্থানীয়দের দাবি।

মাগুরা/২৭ জুন ১৯






Comments are Closed