Main Menu

হাজিপুরে পুলিশ ক্যাম্পের সামনে সন্তান প্রসব করলেন এক মা; পুলিশের সহায়তায় প্রশংসনিয় উদ্যোগ

news 13.03.22

বিশেষ প্রতিনিধি,মাগুরাবার্তা
সন্তান প্রসবের উদ্দেশ্যে মাগুরা সদর উপজেলার বরইচারা গ্রাম থেকে মাগুরা সদর হাসপাতালের উদ্দেশে যাওয়ার পথে প্রসব ব্যথা শুরু হয় আসমানি খাতুন নামে এক মায়ের। এতে দিশেহারা হয়ে পড়েন আসমানী খাতুন (২৫)ও তার স্বামী আলীনুর মোল্যা। পরিস্থিতি বুঝতে পেরে সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসেন হাজীপুর পুলিশ ক্যাম্প ইনচার্জ কাজী রিপন ও তার সহকর্মীরা। তাদের সহযোগিতায় ওই নারী জন্ম দেন ফুটফুটে এক কন্যাসন্তান। শুক্রবার দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে। এ বিষয়ে হাজীপুর পুলিশ ক্যাম্প ইনচার্জ কাজী রিপন বলেন, শুক্রবার (১১মার্চ ) আসমানী খাতুন নামের এক নারী ও তার স্বামী আলীনুর মোল্যা বরইচারা গ্রাম থেকে মাগুরা সদর হাসপাতালের উদ্দেশে যাত্রা করছিলেন ওই দিন রাত ১২টা ১৫ মিনিটে হাজীপুর পুলিশ ক্যাম্প এর কাছাকাছি আসার পরে তাঁর প্রসব ব্যথা ওঠে এবং হাজীপুর পুলিশ ক্যাম্প এর সামনেই ইজিবাইকের মধ্যে বাচ্চা প্রসব করেন। এমতাবস্থায় আসমানী খাতুন এর স্বামী আলীনুর মোল্যা হাজীপুর পুলিশ ক্যাম্প দায়িত্বরত ইনচার্জ কাজী রিপন ও তার সহকর্মীদের সাহায্য চান। হাজীপুর ক্যাম্প পুলিশের সদস্যরা বলেন, আসমানী খাতুন এর স্বামী আলীনুর মোল্যা ডাকে সাড়া দিয়ে এগিয়ে আসেন তারা। পরে এক নারীর সহায়তায় পর্দার সাথে হাজীপুর পুলিশ ক্যাম্প এর ভেতরে আসমানী খাতুন নেওয়া হয়। এরপর পুলিশ সদস্যদের সহায়তায় মা ও নবজাতক কে চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ অবস্থায় তার স্বামীর বাড়ী বরইচারাতে পৌছে দেওয়া হয়।

এবিষয়ে জানতে পেয়ে মাগুরা পুলিশ সুপার জনাব মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম মা ও নবজাতক সুস্থতা কামনা করে ফুলেল শুভেচ্ছা ও উপহার সামগ্রী পাঠান এসময় উপস্থিত ছিলেন হাজীপুর পুলিশ ক্যাম্প ইনচার্জ কাজী রিপন, এ,এস,আই তোজাম্মেল হোসন এ,এস,আই শফিউর রহমান, ইসরাফিল হোসেন এছাড়া জনপ্রতিনিধি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ১নং হাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদ এর মেম্বর মিকাইল ইসলাম ও রবিউল ইসলাম। পরে পুলিশের পক্ষ থেকে ওই পরিবারকে ফুল ও মিষ্টি দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।

এ ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার হলে প্রশংসায় ভাসছে পুলিশের এ মানবিক উদ্যোগ।

মাগুরা






Comments are Closed