Main Menu

মহম্মদপুরে পারিবারিক বিরোধ খুন হলো মাত্র ৩ বছরের শিশু

Magura Sishu Hira Murder Pic

বিশেষ প্রতিনিধি, মাগুরাবার্তা
মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার বিনোদপুর ইউনিয়নের বেথুলিয়া গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে হিরা খাতুন নামের তিন বছরের এক কন্যা শিশুকে নৃশংসভাবে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে তারই আপন চাচাদের বিরুদ্ধে। সোমবার সন্ধ্যায় এই ঘটনা ঘটে। নিহত হিরা বেথুলিয়া গ্রামের আইসক্রিম বিক্রেতা হিরু মোল্যার মেয়ে । ওই রাতেই হিরু মোল্যার ভাই আলিম মোল্যা ও ফারুক মোল্যাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। হৃদয়বিদারক এঘটনার সুষ্ঠ বিচার দাবী করেছেন এলাকাবাসি। মঙ্গলবার সকালে সরেজমিনে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা গেছে, বেথুলিয়া গ্রামের হিরু মোল্যার বাড়িতে এখন শুনসান নিরবতা। ঘরের কোনে বিলাপ করছেন আত্মীয়রা। সোমবার বিকেলে এখানে ঘটে গেছে এক হৃদয় বিদারক ঘটনা। অভিযোগ রয়েছে হিরু মিয়ার মাত্র তিন বছর বয়সের কন্যা হিরাকে হত্যা করেছে তারই আপন চাচা আলিম মোল্যা ও ফারুক মোল্যাসহ অন্যান্য ভাইয়েরা। ভাইদের সঙ্গে হিরু মোল্যার জমিজমাসংক্রান্ত পারিবারিক বিরোধ ছিল। সোমবার হিরার মা বন্যা খাতুন হিরাকে বাড়ির বারান্দায় বসিয়ে ভাত খেতে দিয়ে একা রেখে পাশের বাড়িতে বড় মেয়েকে আনতে যায়। এই ফাকে বাড়িতে ঢুকে এই নৃশংস ঘটনা ঘটায় পাষন্ডরা।
প্রতিবেশী মিমরোজ মোল্যা, ভানু বিবি, নওরীন বেগমসহ একাধিক গ্রামবাসি জানান, দীর্ঘদিনধরে হিরু মিয়ার ভাইদের সঙ্গে জমিজমাসংক্রান্ত বিরোধ ছিল। এসব বিরোধ নিয়ে একমাস আগেও দুপক্ষের মারামারিতে কয়েকজন আহত হয়। এ নিয়ে বেশ কয়েকবার মারামারি ও শালিশ বৈঠক হলেও তেমন কোন সুরাহা হয়নি। সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে হিরু মিয়ার স্ত্রী বন্যা খাতুন কিছু সময়ের জন্য বাড়ির বাইরে গেলেই দুর্বৃত্তরা হিরার মাথার তালুতে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে ও ব্লেড দিয়ে কেটে হত্যা করে। এ সময় তারা শিশুটির লাশ মাটিচাপা দেয়ার জন্য বাড়ির মধ্যেই গর্ত খুচতে চেষ্টা করে। কিন্তু লোকজন চলে আসায় তারা লাশটি শিশুটির বাড়ি থেকে বের হওয়ার পথে একটি ঝোপের মধ্যে ফেলে যায়। বাড়ি ফিরে মেয়েকে খুঁজতে গিয়ে হিরার মরদেহ দেখতে পায় মা বন্যা খাতুন। পরে পুলিশ এসে ময়না তদন্তের জন্য লাশ থানায় নিয়ে যায়। ঘটনার পর থেকেই হিরা খাতুনের চাচারা বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়।
এদিকে মহম্মদপুর থানায় কন্যা হত্যার বিচারের আশায় রাতভর অবস্থান করেন নিহতের বাবা মা। মঙ্গলবার সকালে তারা কান্না জড়িত কন্ঠে সাংবাদিকদের জানান, এর আগেও হিরু মিয়ার ভাইয়েরা তাকে মারতে চেষ্টা চালিয়েছে। তাকে হত্যা করতে না পেরে ওই শিশুটির নৃশংস এ হামলা চালিয়েছে । কাঁদতে কাঁদতে চোখের জল শুকিয়ে গেছে মা বন্যা খাতুনের। বন্যা খাতুন জানান, মাত্র ৩ বছরের শিশুটিকে বাড়িতে রেখে প্রতিবেশীর বাড়ি থেকে বড় মেয়েকে আনতে গেলে এ ঘটনা ঘটায় দুর্বৃত্তরা। তিনি এ ঘটনার সুষ্ঠ বিচার করে আসামীদের ফাঁসির দাবী করেন।
মহম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অসিত কুমার রায় জানান, এ ঘটনার ৬ ঘন্টার মধ্যেই পুলিশ নিহতের চাচা আলিম ও ফারুক মোল্যাকে আটক করেছে পুলিশ। আর যেন কেউ এ ধরনের অপরাধ করতে সাহস না পায় তেমন দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আশ্বাস দেন এই পুলিশ কর্মকর্তা।

রূপক/মাগুরা /১১ অক্টোবর ২২






Comments are Closed