Main Menu

অভিনব কায়দায় তারা চুরি করতো দামী সব মোটরসাইকেল; মাগুরায় গ্রেফতার চার

IMG-20210907-WA0002

বিশেষ প্রতিনিধি, মাগুরাবার্তা
মোটরসাইকেল চালকদের গতিবিধি লক্ষ্য রাখেন তারা। গাড়ি রেখে চালক বাইরে গেলেই তাঁর পিছু নেন দলের একজন। বাকি দুই-তিনজন থাকেন গাড়ির কাছে। গ্রুপের অন্যরা খেয়াল রাখেন আশপাশের বিভিন্ন দিকে। সবােই ব্লুটুথে মোবাইল ফোন গ্রুপ কলে সংযুক্ত। টার্গেট মোটর সাইকেল ঘিরেই চলে কথাবার্তা। গাড়ির চালকের গতিবিধি দেখার থাকা সদস্যের সবুজ সঙ্কেত দিলে একজন গাড়ির উপর উঠে বসেন। মাস্টার কী ব্যবহার করে তালা খোলেন মাত্র পাঁচ সেকেন্ডে। এরপর মোটরসাইকেল নিয়ে মুহুর্তেই হাওয়া। এভাবেই অভিনব বিভিন্ন কায়দা ব্যবহার করে মোটরসাইকেল চুরি করত সংঘবদ্ধ চোর চক্রটি।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আজ মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) মাগুরা সদর উপজেলার শ্রীকুন্ডি (ঘোপডাংগা) এলাকায় অভিযান চালিয়ে এমন কয়েকটি চক্রের চার সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে গোপালগঞ্জ সদর থানা পুলিশের একটি দল।

এ সময় তাদের কাছ থেকে ৩টি চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়। গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিরা হলেন নয়ন মোল্যা (২৫), মো: মিন্টু মিয়া (৩৫), মো: ইমরুল হাসান আনিচ (২৫), মোস্তফা মোল্যা (৪২)। এদের সবাইকে তাদের বাড়ি মাগুরা সদর উপজেলার শ্রীকুন্ডি (ঘোপডাংগা) এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তার নয়ন মোল্যা, মো: মিন্টু মিয়া তাঁদের অন্য ১০-১২’জন সহযোগীদের সঙ্গে পরিকল্পনামাফিক মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যেতেন।

গোপালগঞ্জ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ মনিরুল ইসলাম জানান, গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা দীর্ঘদিন ধরে গোপালগঞ্জের বিভিন্ন এলাকা থেকে মোটরসাইকেল চুরি করে দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করতেন। এদের সবার বাড়ি মাগুরা সদর উপজেলার চাউলিয়া ইউনিয়নের শ্রীকুন্ডি এলাকায়। এদলের ১৪ সদস্যকে এর আগে ও আজ কাল দুইদিনে চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে পালসার, টিভিএস কোম্পানীর তিনটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে।

অভিযুক্তদের জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। জিজ্ঞাষাবাদের জন্য পাঁচদিনের রিমান্ড আবেদন করা হবে। এই চক্রের আরও সদস্য ও গাড়ি উদ্ধারের জন্য পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

মাগুরা/ ৭ সেপ্টেম্বর ২০২১






Comments are Closed