Main Menu

শ্রীপুরের কমলাপুরে সন্তান ও স্ত্রীসহ কৃষককে কুপিয়ে যখম

komlapur clash

বিশেষ প্রতিনিধি, মাগুরাবার্তা
মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার কমলাপুর গ্রামে ঝড়ি বৈদ্যুতিক মিটারের উপরে প্রতিবেশীর ভেঙ্গেপড়া  কলাগাছ সরিয়ে নিতে বলায় এক কৃষক, তার শিশু পুত্র ও এক নারীকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারাত্মক যখম করেছে দুর্বিত্তরা। সৈয়দ আলী (৬০) নামে ওই কৃষক বর্তমানে মাগুরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধিক আছেন। এ ঘটনায় শ্রীপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
জানা গেছে- শ্রীপুরের কাদিরপাড়া ইউনিয়নের কমলাপুর গ্রামে বর্গাচাষি সৈয়দ আলীর প্রতিবেশী বাদশা খান দীর্ঘদিন ধরে সামান্য বিষয় নিয়ে সৈয়দ আলীর পরিবারের উপর হুমকি ধমকি ও প্রভাব বিস্তার করে আসছে। তাদের অত্যাচারে পরিবারটি অতিষ্ঠ রয়েছে।  বুধবার রাতে  ঘুর্ণিঝড় আম্ফান এর প্রভাবে সৃষ্ট ঝড়ে প্রতিবেশী বাদশা খানের বাড়ির কয়েকটি কলাগাছ সৈয়দ আলীর বাড়ির বৈদ্যুতিক মিটারের উপর পড়ে। বৃহস্পতিবার সকালে এ ঘটনাটি প্রতিবেশীকে জানিয়ে তাদের দ্রুত কলাগাছগুলি কেটে নিয়ে যাওয়া অনুরোধ করেন সৈয়দ আলী।  এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে বাদশা খান ও তার ছেলে মেহেদী হাসান। এ সময় তারা টেটা বল্লম ও দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সৈয়দ আলীকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে। তাকে ঠেকাতে এলে সৈয়দ আলীর ১২ বছর বয়সি শিশুপুত্র রবিউল ও স্ত্রী রাবেয়া বেগম আহত হন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
এ ঘটনায় সৈয়দ আলীর শ্যালক বাহারুল ইসলাম বাটু বাদি হয়ে শ্রীপুর থানায় একটি মামলা করেছেন।
শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান জানান- মারপিটের অভিযোগে শ্রীপুর থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। এ ঘটনায় দায়ীদের গ্রেফতার করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার চেষ্টা চলছে।

মাগুরা/ ২২ মে ২০২০






Comments are Closed