Main Menu

বরযাত্রীর দেয়া তথ্যেই ভাঙ্গা হলো বাল্য বিয়ে

images

বিশেষ  প্রতিনিধি, মাগুরাবার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
প্রশাসনকে খবর দিয়ে মাগুরা সদর উপজেলার বগিয়া ইউনিয়নের বড়ই বাজারে ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী রূপা খাতুনের(১৩) বাল্য বিয়ে ভেঙ্গে দিয়েছে ওই বিয়ের এক বরযাত্রী।

আজ শুক্রবার দুপুরে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই বরযাত্রী সাংবাদিকদের মাধ্যমে মাগুরা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু সুফিয়ানকে বাল্য বিয়ের খবর জানালে তিনি ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে বিয়ে বন্ধ করে দেন।

মাগুরা সদর থানার এসআই ওলিয়ার রহমান জানান- সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মহোদয়ের কাছ থেকে বাল্য বিয়ের খবর পেয়ে আমরা বিয়ে বাড়িতে যাই। এ সময় ওই বাড়ির বিয়ের  আয়োজন বন্ধ করে দেয়া হয়। পরে ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেয়া হবেনা মর্মে পরিবারের সদস্যদের লিখিত মুচলেকা নিয়ে পুলিশ ফিরে আসে। পার্শ্ববর্তী নারায়নপুর গ্রামের ব্যবসায়ী তপু রায়হানের সাথে রূপার বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। রূপা বগিয়া সুহাসিনী মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী।  সে বড়ই গ্রামের  মো: আনিফ শেখের মেয়ে।

রূপক /মাগুরা/১৫ সেপ্টেম্বর ১৭






Comments are Closed