Main Menu

শ্রীপুরে দু’দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে আহত ১২

1495897308

শ্রীপুর প্রতিনিধি, মাগুরাবার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার চরগোয়ালপাড়া ও খালগোয়ালপাড়া গ্রামে শনিবার সকালে দু’দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে অন্ততঃ ১২ জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে খালগোয়ালপাড়া গ্রামের মোন্তাজ বিশ্বাস (৭০)কে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও চরগোয়ালপাড়া গ্রামের শুকুর মন্ডল (৬৮)কে মাগুরা সদর হাসপাতালে আশংকাজনক অবস্থায় ভর্তি করা হয়েছে। বাকিরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছে।
পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়,  কোরবানি ঈদের পরদিন (৩ সেপ্টেম্বর) রাতে চরগোয়ালপাড়া বাজারে একটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে শিল্পীদের নৃত্য চলাকালীন সময়ে খালগোয়ালপাড়া গ্রামের জসিম ও আহাদ নামের দু’যুবক বিচ্ছৃঙ্খলা সৃষ্টি করে। এরপর অনুষ্ঠান পরিচালনা কমিটি তাদের দু’জনকেই জোরপূর্বক অনুষ্ঠান থেকে বের করে দেয়। এ ঘটনার পর থেকে জসিম ও আহাদ কমিটির লোকজনদের উপর ক্ষীপ্ত হয়ে প্রতিশোধ নিতে সুযোগ খুঁজতে থাকে। একপর্যায়ে শুক্রবার বিকেলে খালগোয়ালপাড়া গ্রামের জসিম ও আহাদ চরগোয়ালপাড়া গ্রামের গনি বিশ্বাসের ছেলে সুমন বিশ্বাস(২৫)কে একা পেয়ে বেধড়ক পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে। এ ঘটনার জের ধরে চরগোয়ালপাড়া গ্রামবাসী ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে । শনিবার সকালে খালগোয়ালপাড়া গ্রামের মুন্তাজ বিশ্বাসসহ ৪-৫জন গ্রাসবাসী চরগোয়ালপাড়া মাঠের ধান ক্ষেতে কাজ করতে গেলে প্রতিপক্ষ চরগোয়ালপাড়াবাসী তাদেরকে ঘিরে ফেলে ধারাল অস্ত্র দিয়ে বেধড়ক কুপিয়ে মারাত্বক আহত করে এবং হামলাকারীরা চলে যাওয়ার সময় ইউপি সদস্য বুধই বিশ্বাসের ২টি গরু নিয়ে যায়। খালগোয়ালপাড়াবাসী এ সংবাদ শুনামাত্রই দেশীয় অস্ত্র ঢাল, সড়কি, রামদা, ছ্যানদা ও লাঠি-সোঠা নিয়ে চরগোয়ালপাড়া গ্রামের শুকুর মন্ডলে বাড়ি-ঘরে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর লুটপাট করে। এ সময় তারা একটি পাটকাঠির গাদায় আগুন ধরিয়ে দেয় । পরবর্তীতে চরগোয়ালপাড়া গ্রামের লোকজন পাল্টা প্রতিশোধ নিতে মুখোমুখি সংঘর্ষে লিপ্ত হয় । এ সংঘর্ষে মোন্তাজ (৭০),শুকুর(৭০),সেলিম (৩৫),হান্নান(৪০),বারিক(৫০),উজ্জল (৩০), বিউটি (৩০) ও ববিতা (৩৫)সহ উভয় গ্রুপের অন্ততঃ ১২ জন আহত হয় ।
শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ রেজাউল ইসলাম বলেন, সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি শান্ত করেছে ।এলাকায় উত্তেজনা থাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

মাগুরা/ ৯ সেপ্টেম্বর১৭






Comments are Closed